১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

দুধ, আনারস একসাথে খেলে কী হয়?

আমরা সব সময় শুনে থাকি দুধ ও আনারস একসঙ্গে খাবেন না। দুধ-আনারস একসঙ্গে খেলে নাকি হতে পারে বিপত্তি। তবে কথাটি কি সত্যি। কী বিপত্তি হতে পারে, তা কি আপনার জানা আছে?

আনারসে রয়েছে ভিটামিন এ এবং সি, ক্যালসিয়াম,পটাশিয়াম ও ফসফরাস। আর দুধকে আমরা সুষম খাদ্য হিসেবে বিবেচনা করি। তবে আনারস আর দুধ একসঙ্গে খেলে মানুষ বিষক্রিয়া হয়ে মারা যায়-এ রকম একটি ধারণা প্রচলিত আছে।

জানা আছে, দুধ-আনারস একসঙ্গে খেলে কি সমস্যা হয়? এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন, ঢামেক টেলিমেডিসিন বিভাগের কো-অর্ডিনেটর সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ যায়েদ হোসেন।

আসুন জেনে নেই দুধ আনারস একসঙ্গে খেলে কী হয়?

দুধ-আনারসে বিষক্রিয়া

আনারস ও দুধ একসঙ্গে খেলে বিষক্রিয়া হয়ে কেউ মারা যায় এই ধারণা ভুল। এগুলো একধরনের ফুড ট্যাবু বা খাদ্য কুসংস্কার। দুধ আর আনারস একসঙ্গে খেলে কেউ মারা যায় না। এটি সম্পূর্ণ ভুল ধারণা।

বদ হজম, পেট ফাঁপা, পেট খারাপ

আনারস ও দুধ একসঙ্গে খেলে বিষক্রিয়া হয় না। আনারস একটি অ্যাসিডিক এবং টকজাতীয় ফল। দুধের মধ্যে যে কোনো টকজাতীয় জিনিস দিলে দুধ ছানা হয়ে যেতে পারে বা ফেটে যেতে পারে। হতে পারে বদহজম, পেট ফাঁপা, পেট খারাপ।, তবে বিষক্রিয়ার কোনো আশঙ্কা নেই।

গ্যাসট্রিকের সমস্যা

দুধ ও আনারস খেলে বিষক্রিয়া সমস্যা নেই। তবে যাদের গ্যাসট্রিকের সমস্যা রয়েছে, খালি পেটে আনারস খেলে তাদের এই সমস্যা বেড়ে যেতে পারে। তাই খালি পেঠে আনারস ও টকজাতীয় কোনো খাবার খাবেন না।

কুসংস্কার

এমন কখনো দেখিনি যে দুধ-আনারস একসঙ্গে খেয়ে মানুষ মারা গেছে। এটা একটা কুসংস্কার। ডেজার্ট, কাস্টার্ড বা স্মুদিতে আনারস-দুধ একত্রে মিশিয়ে খাই। এ ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হয় না।এটি এটি সম্পূর্ণ কুসংস্কার।

খাদ্যের সমন্বয়

পাইনঅ্যাপেল কাস্টার্ড, ডেজার্ট, পাইনঅ্যাপেল স্মুদি, পাইনঅ্যাপেল মিল্ক সেক, পাইনঅ্যাপেল সালাদ, পাইনঅ্যাপেল ইয়োগার্ট ইত্যাদি ফলগুলো আমরা একসঙ্গে খাই। এই ফলগুলোর মধ্যে খাদ্যের সঠিক সমন্বয় থাকে। তাই কোনো সমস্যা হয় না।

অন্যদিকে এক গ্লাস দুধ খেলেন, পাশাপাশি আনারস খেয়ে নিলেন তাহলে সঠিক খাদ্যের সমন্বয় হয় না। এ ক্ষেত্রে সঠিক সমন্বয় না হওয়ার ফলে পাতলা পায়খানা, বদ হজম, অ্যাসিডিটিসহ বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে।

দুই থেকে তিন ঘণ্টা বিরতি

দুধ-আনারস একসঙ্গে না খেয়ে দুই থেকে তিন ঘণ্টা বিরতি দেয়া যেতে পারে। কারণ একসঙ্গে খেলে হজমের সমস্যা হতে পারে। তবে এ ক্ষেত্রে খাদ্যে বিষক্রিয়া হওয়ার কোনো কারণ নেই।

দুধ ও আনারস নিয়ে এই ভুল ধারণা সৃষ্টি হওয়ার কয়েকটা অনুমান:

  • যেহেতু দক্ষিণ এশিয়রা জিনগতভাবে সবচেয়ে বেশি ল্যাক্টোজ ইনটলারেন্ট বা দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্য হজমে অক্ষম গোষ্ঠীগুলোর অন্যতম, দুধের সাথে যে কোনো অ্যাডভেঞ্চার করতে গেলেই তাদের বিপদে পড়তে হয়। প্রথম দিকে যারা আনারস ও দুধ নিয়ে অ্যাডভেঞ্চার করেছিল তাদের বাজে অভিজ্ঞতা হয়েছে। কেউ প্রাণ হারিয়ে থাকতে পারে। তারপর থেকে এই খবর চারপাশে ছড়িয়ে গেছে। অবশ্য দুধের সাথে আম, কলা ইত্যাদি ফলের মেলামেশায় কোন ট্যাবু আমাদের সংস্কৃতিতে নাই। এটাও একটা আজব ব্যাপার যার কোন ব্যাখ্যা নেই।
  • আমাদের ঐতিহ্যবাহী খাদ্যাভ্যাস খুব একটা স্বাস্থ্যকর না। লোকে সুযোগ পেলেই পোলাও, বিরিয়ানি, তেহারি, মিষ্টি ইত্যাদি খায়। এসবের কারণে অনেক লোকেরই গ্যাস্ট্রিক, আলসার নানা রকম পরিপাকতন্ত্রের জটিলতায় ভুগে। সেই সব রোগে ভোগা পেটে যাই পড়বে তাতেই কিছু একটা গোলমাল হবে। মাঝখান দিয়ে আনারসের বদনাম।
  • মুখে স্বীকার না করলেও, আমাদের এই অঞ্চলের লোকেরা ভালোই মদ্যপ। লুকিয়ে সবাই মদ খেয়ে যকৃতসহ অন্যান্য আভ্যন্তরিক অঙ্গের বারোটা বাজিয়ে রাখে। তারপর আনারস, লেবুর রস যাই পেটে পড়ুক, কিছু একটা গোলমাল হবেই। সেই থেকে লোকের ধারণা হয়েছে দুধ ও আনারস খেলে সমস্যা হবে।
  • আনারস আমাদের দেশের ফল না। পর্তুগিজরা কয়েক শতাব্দী আগে যখন আমাদের দেশে এসেছিল তখন তাদের হাতে করে আনারস এখানে এসেছে। আমাদের পূর্বপুরুষেরা কিছু কিছু ক্ষেত্রে হদ্দ বোকা ছিল এবং বহির্বিশ্বের প্রতি এক ধরনের ট্যাবু মানসিকতা চর্চা করত। এর উদাহরণ হলো কালা পানি পার হলে জাত হারানোর নিয়ম। হয়ত সেই একই মানসিকতা থেকে আনারসকে দোষারোপ করা হয়েছে।

সূত্র: ইন্টারনেট

 452 total views,  1 views today

Please Like & Share
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Be the first to comment on "দুধ, আনারস একসাথে খেলে কী হয়?"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*